ঢাকা ১০:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ছেলেকে পেটানোর পর মাকে পিটিয়ে গাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ স্বজনদের Logo পীরগঞ্জ ওসির ফোন নম্বর ক্লোন করে প্রার্থীদের কাছে চাঁদা দাবি, ফেসবুকে ওসির সর্তক পোস্ট Logo রাতে হোটেলে খেতে গিয়ে দায়িত্ব হারালেন ঠাকুরগাঁওয়ের এক প্রিজাইডিং কর্মকর্তা… Logo তীব্র গরম উপেক্ষা করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন প্রার্থীরা Logo ঠাকুরগাঁওয়ের গড়েয়ায় জিংক সমৃদ্ধ চালের উপকারিতা বিষয়ে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান Logo ঠাকুরগাঁওয়ে টেকসই নদী ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা Logo বালিয়াডাঙ্গীতে বিদুৎপৃষ্ঠে কলেজছাত্রের মৃত্যু Logo ঠাকুরগাঁওয়ে বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের এক্সরে মেশিনটি প্রায় ১৫ বছর ধরে নষ্ট হয়ে পড়ে রয়েছে Logo ঠাকুরগাঁওয়ে নিবির হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ Logo তাহিরপুরে স’ মিলে আগুন; কয়েক লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
জনপ্রিয় দৈনিক আজকের ঠাকুরগাঁও পত্রিকায় আপনাকে স্বাগতম... উত্তরবঙ্গের গণমানুষের ঠিকান এই স্লোগানকে সামনে রেখে দেশ জনপ্রিয় পত্রিকা দৈনিক আজকের ঠাকুরগাঁও এর জন্য, দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি কলেজে একযোগে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আপনি যদি সৎ ও কর্মঠ হোন আর অনলাইন গনমাধ্যমে কাজ করতে ইচ্ছুক তবে আবেদন করতে পারেন। আবেদন পাঠাবেন নিচের এই ঠিকানায় ajkerthakurgaon@gmail.com আমাদের ফেসবুল পেইজঃ https://www.facebook.com/ajkerthakurgaoncom প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন মোবাইল : ০১৮৬০০০৩৬৬৬

নির্বাচনী প্রচারণায় প্রস্তুত সাউন্ড সিস্টেম-ছাপাখানা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:০২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / 31
আজকের ঠাকুরগাঁও অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নির্বাচনের মাঠ সরগরম করে প্রচারণার নানা উপকরণ। সোমবার থেকে শুরু হয়েছে প্রচার-প্রচারণা। জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের সাউন্ড সিস্টেম ও ছাপাখানা গুলো। দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ ও ঝামেলা এড়াতে করা হচ্ছে মেরামত। আর দরকারি সরঞ্জাম, কাগজ-কালি ও মৌসুমী শ্রমিক মজুদের প্রস্তুতি চলছে তাদের। তবে প্রার্থীরা বাইরে থেকে কাজ না করিয়ে স্থানীয়ভাবে এ শিল্প আরো এগিয়ে যাবে বলে প্রত্যাশা মালিকদের।

ছন্দে ছন্দে আর প্রার্থীর গুণগানে মুখরতি হয়ে নির্বাচনী মাঠে চলে প্রচারণার মহাযজ্ঞ। নির্বাচনে প্রচারণা ভোটের মাঠকে সরগরম করে তোলে। সেই সঙ্গে তৈরি করে ভোটের মাঠে উৎসবের আমেজ। কাল থেকে শুরু হবে জাতীয় নির্বাচনের মাইকিং, পোস্টারিংসহ নানাভাবে ও নানা সাজে নির্বাচনী প্রচারণা। নির্বাচনী মাঠকে চাঙ্গা রাখতে আগাম প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের মাইক সাউন্ড-সিস্টেম ও ছাপাখানা গুলো।

মাইক ব্যবসায়ী ও ছাপাখানাগুলোতে গিয়ে দেখা যায়, নির্বাচনী প্রচারণার প্রস্তুতি হিসেবে নিয়ে আসা হয়েছে নতুন মেশিন ও সরঞ্জামাদি। কাজের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে এমন সরঞ্জামদি করা হচ্ছে মেরামত। অলিতে-গলিতে নির্বাচনের হাওয়া পৌঁছে দিতে বিভিন্ন ধরণের ও আকারের মাইক নিয়ে এসেছেন ব্যবসায়ীরা। আর দরকারি কাগজ ও কালি নিয়ে মজুদ ছাপাখানা গুলো। আবার অনেকে তৈরি করে ফেলেছেন পোস্টারের ডিজাইন, অপেক্ষা শুধু বের হওয়ার।

তবে পরিবহন খরচ বাড়ার পর থেকে বেড়েছে সাউন্ড সিস্টেম ও ছাপাখানার খরচ। গত দেড় বছরে সব কিছুর দাম বেড়ে হয়েছে দ্বিগুণ। তাই এবারে নির্বাচনী প্রচারণায় বাড়বে খরচ। তবুও ভালো ব্যবসা করার আশাবাদী মালিকেরা।

জেলায় মোট ৩০টি ছাপাখানা ও ১৪৫ টি মাইকিং সাউন্ড-সিস্টেমের দোকান রয়েছে। সবাই নির্বাচনকে ঘিরে নিয়ে রেখেছেন আগাম প্রস্তুতি।

তবে অতীতের ব্যবসার শিক্ষায় হতাশ ছাপাখানার মালিকেরা। স্থানীয়ভাবে প্রিন্ট না করার কারণে পড়ছে মন্দা প্রভাবণ শিল্পকে ধরে রাখতে এবারে প্রার্থীদের স্থানীয়ভাবে প্রিন্ট করবার আহবান সবার।

ইসি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে আগামীকাল ১৮ ডিসেম্বর। সেদিনই শুরু হবে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। যা চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। এবারে ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ টি সংসদীয় আসনে ৪১৭ টি ভোটকেন্দ্রে ১১ লাখ ৪৫ হাজার ৬০৪ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

পূর্বাশা অসফেট কালার প্রেসের স্বত্বাধিকারী তুষার বলেন, ভোটের মাঠের প্রচারণার জন্য পোস্টার, লিফলেট তৈরির জন্য আমাদের সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। স্থানীয়ভাবে প্রার্থীরা কাজ করলে আমাদের এ শিল্পকে ধরে রাখতে আরো সহজ হবে।

ঠাকুরগাঁও জেলা মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে আমাদের মাইকিং ও সাউন্ড সিস্টেম গুলোতে সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। নির্বাচনের জন্য নির্ধারিত মূল্য আমরা নির্ধারণ করেছি। আশা করছি ভালো ব্যবসা করতে পারব।

ঠাকুরগাঁও প্রেস মালিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল মান্নান বলেন, আমরা ইউনিয়ন ও উপজেলা পরিষদের কাজগুলো পেলেও সংসদ নির্বাচনের পাইনা। অনেক আশা থাকলে ক্ষতির মুখে পড়তে হয় ব্যবসায়ীদের। স্থানীয় ছাপাখানাগুলোতে ছাপালে এ শিল্পকে ধরে রাখা সম্ভব ও আরো মানুষের কর্মসংস্থান বাড়বে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

নির্বাচনী প্রচারণায় প্রস্তুত সাউন্ড সিস্টেম-ছাপাখানা

আপডেট সময় : ০২:০২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্বাচনের মাঠ সরগরম করে প্রচারণার নানা উপকরণ। সোমবার থেকে শুরু হয়েছে প্রচার-প্রচারণা। জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের সাউন্ড সিস্টেম ও ছাপাখানা গুলো। দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ ও ঝামেলা এড়াতে করা হচ্ছে মেরামত। আর দরকারি সরঞ্জাম, কাগজ-কালি ও মৌসুমী শ্রমিক মজুদের প্রস্তুতি চলছে তাদের। তবে প্রার্থীরা বাইরে থেকে কাজ না করিয়ে স্থানীয়ভাবে এ শিল্প আরো এগিয়ে যাবে বলে প্রত্যাশা মালিকদের।

ছন্দে ছন্দে আর প্রার্থীর গুণগানে মুখরতি হয়ে নির্বাচনী মাঠে চলে প্রচারণার মহাযজ্ঞ। নির্বাচনে প্রচারণা ভোটের মাঠকে সরগরম করে তোলে। সেই সঙ্গে তৈরি করে ভোটের মাঠে উৎসবের আমেজ। কাল থেকে শুরু হবে জাতীয় নির্বাচনের মাইকিং, পোস্টারিংসহ নানাভাবে ও নানা সাজে নির্বাচনী প্রচারণা। নির্বাচনী মাঠকে চাঙ্গা রাখতে আগাম প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেছে ঠাকুরগাঁওয়ের মাইক সাউন্ড-সিস্টেম ও ছাপাখানা গুলো।

মাইক ব্যবসায়ী ও ছাপাখানাগুলোতে গিয়ে দেখা যায়, নির্বাচনী প্রচারণার প্রস্তুতি হিসেবে নিয়ে আসা হয়েছে নতুন মেশিন ও সরঞ্জামাদি। কাজের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে এমন সরঞ্জামদি করা হচ্ছে মেরামত। অলিতে-গলিতে নির্বাচনের হাওয়া পৌঁছে দিতে বিভিন্ন ধরণের ও আকারের মাইক নিয়ে এসেছেন ব্যবসায়ীরা। আর দরকারি কাগজ ও কালি নিয়ে মজুদ ছাপাখানা গুলো। আবার অনেকে তৈরি করে ফেলেছেন পোস্টারের ডিজাইন, অপেক্ষা শুধু বের হওয়ার।

তবে পরিবহন খরচ বাড়ার পর থেকে বেড়েছে সাউন্ড সিস্টেম ও ছাপাখানার খরচ। গত দেড় বছরে সব কিছুর দাম বেড়ে হয়েছে দ্বিগুণ। তাই এবারে নির্বাচনী প্রচারণায় বাড়বে খরচ। তবুও ভালো ব্যবসা করার আশাবাদী মালিকেরা।

জেলায় মোট ৩০টি ছাপাখানা ও ১৪৫ টি মাইকিং সাউন্ড-সিস্টেমের দোকান রয়েছে। সবাই নির্বাচনকে ঘিরে নিয়ে রেখেছেন আগাম প্রস্তুতি।

তবে অতীতের ব্যবসার শিক্ষায় হতাশ ছাপাখানার মালিকেরা। স্থানীয়ভাবে প্রিন্ট না করার কারণে পড়ছে মন্দা প্রভাবণ শিল্পকে ধরে রাখতে এবারে প্রার্থীদের স্থানীয়ভাবে প্রিন্ট করবার আহবান সবার।

ইসি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে আগামীকাল ১৮ ডিসেম্বর। সেদিনই শুরু হবে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। যা চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। এবারে ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ টি সংসদীয় আসনে ৪১৭ টি ভোটকেন্দ্রে ১১ লাখ ৪৫ হাজার ৬০৪ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

পূর্বাশা অসফেট কালার প্রেসের স্বত্বাধিকারী তুষার বলেন, ভোটের মাঠের প্রচারণার জন্য পোস্টার, লিফলেট তৈরির জন্য আমাদের সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। স্থানীয়ভাবে প্রার্থীরা কাজ করলে আমাদের এ শিল্পকে ধরে রাখতে আরো সহজ হবে।

ঠাকুরগাঁও জেলা মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে আমাদের মাইকিং ও সাউন্ড সিস্টেম গুলোতে সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। নির্বাচনের জন্য নির্ধারিত মূল্য আমরা নির্ধারণ করেছি। আশা করছি ভালো ব্যবসা করতে পারব।

ঠাকুরগাঁও প্রেস মালিক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল মান্নান বলেন, আমরা ইউনিয়ন ও উপজেলা পরিষদের কাজগুলো পেলেও সংসদ নির্বাচনের পাইনা। অনেক আশা থাকলে ক্ষতির মুখে পড়তে হয় ব্যবসায়ীদের। স্থানীয় ছাপাখানাগুলোতে ছাপালে এ শিল্পকে ধরে রাখা সম্ভব ও আরো মানুষের কর্মসংস্থান বাড়বে।