ঢাকা ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
জনপ্রিয় দৈনিক আজকের ঠাকুরগাঁও পত্রিকায় আপনাকে স্বাগতম... উত্তরবঙ্গের গণমানুষের ঠিকান এই স্লোগানকে সামনে রেখে দেশ জনপ্রিয় পত্রিকা দৈনিক আজকের ঠাকুরগাঁও এর জন্য, দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি কলেজে একযোগে সাংবাদিক নিয়োগ চলছে। আপনি যদি সৎ ও কর্মঠ হোন আর অনলাইন গনমাধ্যমে কাজ করতে ইচ্ছুক তবে আবেদন করতে পারেন। আবেদন পাঠাবেন নিচের এই ঠিকানায় ajkerthakurgaon@gmail.com আমাদের ফেসবুল পেইজঃ https://www.facebook.com/ajkerthakurgaoncom প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন মোবাইল : ০১৮৬০০০৩৬৬৬

ঠাকুরগাঁওয়ে নিবির হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ

মজিবর রহমান শেখ, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১০:৪৬:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪
  • / 18
আজকের ঠাকুরগাঁও অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের মাদ্রাসাপাড়া মহল্লার ১২ বছরের শিশু নিবির হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এই ঘটনার সাথে জড়িত ছদ্মনাম আকাশ (১৪) কে গ্রেফতার করেছে ।

শুক্রবার (১৭ মে) বিকালে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান। প্রেস রিলিজে জানানো হয়, ঘটনার দিন চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে আকাশ ও নিবির বাইসাইকেল যোগে ঔষধ ক্রয়ের উদ্দেশ্যে বাসস্ট্যান্ড যাওয়ার পথে তার বাড়ীর সামনে দেখতে পেয়ে তার সাথে যাওয়ার প্রস্তাব দেয়। তারা বাইসাইকেল যোগে ঔষধ ক্রয়ের উদ্দেশ্যে ঠাকুরগাঁও বাসস্ট্যান্ডে যায়। ঔষধের মূল্য বেশি হওয়ায় তারা ঔষধ ক্রয় করতে না পেরে বাড়ীতে চলে আসে। আকাশ তার নিজ বাড়ীতে চলে যায়।

পরে নিবির শেখ তার বাড়ীতে রুটি খেয়ে দুপুরে পূনরায় খেলাধুলার উদ্দেশ্যে আকাশ এর বাড়ীতে যায়। আকাশের বাড়ীর ভেতর টিনের একচালা রান্নাঘরে মারবেল নিয়ে খেলার একপর্যায়ে উভয়ের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ হয়। এর এক পর্যায় নিবির শেখকে মাটিতে ফেলে আকাশ বুকের উপর উঠে দুই হাত দিয়ে নিবির শেখের গলা চেপে ধরে। এতে শ্বাসরোধ হয়ে নিবির মারা যায়। পরে আকাশ নিবির শেখের মৃত্যুর বিষয়টি বুঝতে পারে। এক সময় নিবিরের মরদেহ গোপন করার উদ্দেশ্যে দুইটি প্লাস্টিকের বস্তায় ঢুকিয়ে বাড়ীর পিছনে গলিতে ফেলে রাখে এবং নিবির শেখের পরনে থাকা কালো, সাদা ও লাল রংয়ের একজোড়া স্যান্ডেল বাড়ীর প্রাচীরের উপর দিয়া পশ্চিম দিকের জঙ্গলে ফেলে দেয়। পরদিন ১৯ এপ্রিল শুক্রবার সন্ধ্যায় নিবিরের মরদেহ আকাশ নিবিরের বাড়ীর পিছনে পশ্চিমে গলিতে ফেলে রাখে।

পরে পুলিশ দু’টি বস্তা, জুতা এবং ২০৯ (দুই শত নয়) পিস কাঁচের মার্বেল উদ্ধার করে। উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার নিবির বাসা থেকে বের হলে আর ফেরেনি। পরে নিখোঁজের দুই দিন পর শনিবার (২০ এপ্রিল) ভোরে নিবিরের মরদেহ বাসার পাশে গলিতে দেখতে পায়। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বার্তা সম্পাদক

দৈনিক আজকের ঠাকুরগাঁও এর বার্তা সম্পাদক
ট্যাগস :

ঠাকুরগাঁওয়ে নিবির হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ

আপডেট সময় : ১০:৪৬:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের মাদ্রাসাপাড়া মহল্লার ১২ বছরের শিশু নিবির হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এই ঘটনার সাথে জড়িত ছদ্মনাম আকাশ (১৪) কে গ্রেফতার করেছে ।

শুক্রবার (১৭ মে) বিকালে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান। প্রেস রিলিজে জানানো হয়, ঘটনার দিন চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে আকাশ ও নিবির বাইসাইকেল যোগে ঔষধ ক্রয়ের উদ্দেশ্যে বাসস্ট্যান্ড যাওয়ার পথে তার বাড়ীর সামনে দেখতে পেয়ে তার সাথে যাওয়ার প্রস্তাব দেয়। তারা বাইসাইকেল যোগে ঔষধ ক্রয়ের উদ্দেশ্যে ঠাকুরগাঁও বাসস্ট্যান্ডে যায়। ঔষধের মূল্য বেশি হওয়ায় তারা ঔষধ ক্রয় করতে না পেরে বাড়ীতে চলে আসে। আকাশ তার নিজ বাড়ীতে চলে যায়।

পরে নিবির শেখ তার বাড়ীতে রুটি খেয়ে দুপুরে পূনরায় খেলাধুলার উদ্দেশ্যে আকাশ এর বাড়ীতে যায়। আকাশের বাড়ীর ভেতর টিনের একচালা রান্নাঘরে মারবেল নিয়ে খেলার একপর্যায়ে উভয়ের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ হয়। এর এক পর্যায় নিবির শেখকে মাটিতে ফেলে আকাশ বুকের উপর উঠে দুই হাত দিয়ে নিবির শেখের গলা চেপে ধরে। এতে শ্বাসরোধ হয়ে নিবির মারা যায়। পরে আকাশ নিবির শেখের মৃত্যুর বিষয়টি বুঝতে পারে। এক সময় নিবিরের মরদেহ গোপন করার উদ্দেশ্যে দুইটি প্লাস্টিকের বস্তায় ঢুকিয়ে বাড়ীর পিছনে গলিতে ফেলে রাখে এবং নিবির শেখের পরনে থাকা কালো, সাদা ও লাল রংয়ের একজোড়া স্যান্ডেল বাড়ীর প্রাচীরের উপর দিয়া পশ্চিম দিকের জঙ্গলে ফেলে দেয়। পরদিন ১৯ এপ্রিল শুক্রবার সন্ধ্যায় নিবিরের মরদেহ আকাশ নিবিরের বাড়ীর পিছনে পশ্চিমে গলিতে ফেলে রাখে।

পরে পুলিশ দু’টি বস্তা, জুতা এবং ২০৯ (দুই শত নয়) পিস কাঁচের মার্বেল উদ্ধার করে। উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার নিবির বাসা থেকে বের হলে আর ফেরেনি। পরে নিখোঁজের দুই দিন পর শনিবার (২০ এপ্রিল) ভোরে নিবিরের মরদেহ বাসার পাশে গলিতে দেখতে পায়। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে।